মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেবিদ্বারে কেঁদে কেঁদে ঈগল প্রতিকে ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম নৌকায় ভোট দিয়েই মেঘনার সঠিক উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব… সেলিমা আহমাদ ঈগলে ভোট দিলে গোমতীর মাটি লুট জিবির নামে চাঁদাবাজি বন্ধ হবে: আবুল কালাম আজাদ দেবিদ্বারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা কুমিল্লায় পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ ব্রাজিলে ঘূর্ণিঝড়ে নিহত ২২ সিলেটে মসজিদের পুকুর থেকে ইমামের মরদেহ উদ্ধার সিলেটে সিএনজি স্টেশনের জেনারেটর বিস্ফোরণে দগ্ধ ৭ বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিলের নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা মারা গেলেন লন্ডনের বাংলাদেশ হাইক‌মিশনের মিনিস্টার মুক্তি

নোটের মতো কুপন ছাপলে ব্যবস্থা

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৫০

ব্যাংক নোটের মতো করে কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান কোনো ধরনের বিল, কুপন বা টিকিট ছাপাতে পারবে না। একই সঙ্গে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদন ছাড়া ইলেক্ট্রনিক কার্ডের মাধ্যমে অর্থের লেনদেন করার মতো কোনো কার্ডও তৈরি করা যাবে না। প্রচলিত আইন অনুযায়ী এগুলো তৈরি, ছাপানো ও বিলি করা সবই নিষিদ্ধ। তারপরও বেআইনিভাবে কিছু প্রতিষ্ঠান এ ধরনের কর্মকাণ্ড করছে। আইনে এগুলো করলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার বিধান রয়েছে। এ ধরনের কিছু অভিযোগ কেন্দ্রীয় ব্যাংক তদন্ত করছে। তদন্তে অভিযোগের প্রমাণ পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সূত্র জানায়, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নজরে এসেছে এ ধরনের কার্ড ছেড়ে গ্রাহকদের কাছ থেকে অর্থ তুলে নিচ্ছে। এর মধ্যে একটি রেস্টুরেন্ট ও ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের তথ্য পাওয়া গেছে। রেস্টুরেন্টটি বিল পরিশোধের জন্য নোটের মতো করে বিশেষ কার্ড ছেপেছে। ফলে অর্থের লেনদেনযোগ্য কোনো কার্ড গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করে আগাম টাকা নিচ্ছে। এসব কার্ডের বিপরীতে বিশেষ ছাড় দিয়ে গ্রাহকদের আগাম কার্ড কিনতে উৎসাহিত করছে। অথচ আইন অনুযায়ী এ ধরনের কার্ড ছাপানো ও বিলি করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।

একটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানও এ ধরনের কার্ড ছেপে গ্রাহকদের মধ্যে বিলি করছে। কার্ড দিয়ে লেনদেনে বিশেষ ছাড় দিচ্ছে।

আইন অনুযায়ী, কোনো ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান ছাড়া কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদনের বাইরে কেউ এ ধরনের কার্ড বা কুপন ছাপতে পারে না। এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ২০১৯ সালের ২২ সেপ্টেম্বর সতর্ক করে একটি গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়, ব্যাংক নোটের মতো করে কোনো ধরনের বিল, কুপন বা টিকিট ছাপানোর বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক করে বলেছে, ব্যাংক নোটের আদলে কোনো বিল, কুপন বা যে কোনো ধরনের টিকিট ছাপানো বিক্রি বা ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা ও বিভাগীয় শহরে ব্যক্তি মালিকানাধীন কিছু হোটেল, রেস্তোরাঁ এবং শহরের পাশে অবস্থিত বিনোদন পার্ক নোটের মতো দেখতে বিভিন্ন মূল্যমানের খাবার বিল, টোকেন বা টিকিট ছাপিয়ে ব্যবহার করছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, এগুলোর মাধ্যমে সাধারণ মানুষের প্রতারিত হওয়া সুযোগ রয়েছে। একই সঙ্গে জাল নোট প্রস্তুতকারক চক্রের প্রতারণা বাড়তে পারে। এ জন্য দণ্ডনীয় এমন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকতে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানগুলোকে সতর্ক থাকতে বলা হয়। এতে সংশ্লিষ্টদের আরও সতর্ক করে বলা হয়, ওই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পরও যদি কেউ এমন কাজ করে তবে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংক আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে। সূত্র জানায়, ওই বিজ্ঞপ্তি প্রচার এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তৎপরতা শুরু হলে এগুলো বন্ধ হয়েছিল। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে এ ধরনের বেআইনি কর্মকাণ্ড ঘটছে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব অভিযোগের কয়েকটির ব্যাপারে সতর্কতামূলক ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved ©2023 -ওল্ডহাম বাংলা নিউজ |

সম্পাদক ও প্রকাশক: