রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৪:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দেবিদ্বারে কেঁদে কেঁদে ঈগল প্রতিকে ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম নৌকায় ভোট দিয়েই মেঘনার সঠিক উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব… সেলিমা আহমাদ ঈগলে ভোট দিলে গোমতীর মাটি লুট জিবির নামে চাঁদাবাজি বন্ধ হবে: আবুল কালাম আজাদ দেবিদ্বারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা কুমিল্লায় পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ ব্রাজিলে ঘূর্ণিঝড়ে নিহত ২২ সিলেটে মসজিদের পুকুর থেকে ইমামের মরদেহ উদ্ধার সিলেটে সিএনজি স্টেশনের জেনারেটর বিস্ফোরণে দগ্ধ ৭ বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিলের নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা মারা গেলেন লন্ডনের বাংলাদেশ হাইক‌মিশনের মিনিস্টার মুক্তি

পল্লী উন্নয়ন পদক পেলেন প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৯ মে, ২০২২
  • ৪৭

 

বংশাল থানার প্রতি‌নি‌ধি

সাংবা‌দিক নজরুল ইসলাম

 

পল্লী উন্নয়নের জন্য টানা তিনবারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পদক প্রদান করেছে সেন্টার অন ইন্ট্রিগ্রেটেড রুরাল ডেভেলপমেন্ট ফর এশিয়া অ্যান্ড দ্য প্যাসিফিক’ (সিরডাপ)।রোববার (২৯ মে) সকালে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘আজিজুল হক পল্লী উন্নয়ন পদক ২০২১’ তুলে দেন সিরডাপের মহাপরিচালক ডা.চেরদসাক ভিরাপা।এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম ও প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্যবিস্তারিত আসছে…

 

আরও পড়ুন= রোগীদের হাত থেকে চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র (প্রেসক্রিপশন) টেনে নিয়ে ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের ছবি তোলার বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে হবিগঞ্জের স্বাস্থ্য প্রশাসন। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনকে চিঠি পাঠিয়েছেন জেলাটির সিভিল সার্জন মোহাম্মদ নূরুল হক।রোগীদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে

 

শনিবার (২৯ মে) তিনি এই চিঠি ইস্যু করেন। বাংলাদেশ ফার্মাসিউটিক্যালস রিপ্রেজেন্টেটিভ অ্যাসোসিয়েশন (ফারিয়া) হবিগঞ্জের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে ডেকে এনেও তিনি নিষেধের বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছেন।স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালসহ বেসরকারি ক্লিনিক ও চিকিৎসকদের চেম্বারের সামনে ওষুধ কোম্পানির

 

প্রতিনিধিরা সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে থাকেন। রোগীরা চেম্বার থেকে বের হলেই তাঁরা চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্রটি টেনে নিয়ে ছবি তুলতে থাকেন। একেকজন রোগীর ব্যবস্থাপত্র নেওয়ার জন্য ৫ থেকে ১০ জন প্রতিনিধি টানাটানি শুরু করেন। অনেক মুমূর্ষু রোগী এতে আরও অসুস্থ হয়ে যান। এ নিয়ে রোগীর স্বজন ও ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধির মধ্যে ঝগড়াও হয়।এই সমস্যা সমাধানের জন্য

 

ব্যবস্থা নিতে হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) চিঠি দেওয়া হয়েছে। ফারিয়ার সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককেও ডেকে এনে বারণ করা হয়েছে।এ বিষয়ে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক আমিনুল ইসলাম বলেন, তিনি ও সিভিল সার্জন একই ব্যাপারে দুইটি চিঠি ইস্যু করেছেন। রোগীদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়। ব্যবস্থাপত্র টানাটানি বন্ধ করতে এখন থেকে নিয়মিত তদারকি করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved ©2023 -ওল্ডহাম বাংলা নিউজ |

সম্পাদক ও প্রকাশক: