মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেবিদ্বারে কেঁদে কেঁদে ঈগল প্রতিকে ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম নৌকায় ভোট দিয়েই মেঘনার সঠিক উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব… সেলিমা আহমাদ ঈগলে ভোট দিলে গোমতীর মাটি লুট জিবির নামে চাঁদাবাজি বন্ধ হবে: আবুল কালাম আজাদ দেবিদ্বারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা কুমিল্লায় পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ ব্রাজিলে ঘূর্ণিঝড়ে নিহত ২২ সিলেটে মসজিদের পুকুর থেকে ইমামের মরদেহ উদ্ধার সিলেটে সিএনজি স্টেশনের জেনারেটর বিস্ফোরণে দগ্ধ ৭ বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিলের নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা মারা গেলেন লন্ডনের বাংলাদেশ হাইক‌মিশনের মিনিস্টার মুক্তি

মাদ্রাসায় শারীরিক নির্যাতনের পর শিশু নিখোঁজ,এক সপ্তাহেও মেলেনি সন্ধান

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৮ জুন, ২০২২
  • ৩০

 

মোঃরাশেদুল ইসলাম

রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি

 

 

 

লালমনিরহাট সদর উপজেলার একটি মাদ্রাসায় শিক্ষকের ‘নির্যাতন ও অপমানের শিকার’ হয়ে মাদ্রাসা থেকে নিখোঁজ হওয়ার পর এক সপ্তাহ কেটে গেলেও শিক্ষার্থী আদনান সাহিলের (১২) সন্ধান পাচ্ছে না পরিবার।

 

আদনান সাহিল (১২) তিস্তা আল-জামিয়া ইসলামিয়া মডেল হেফজুল কোরআন ও হাফেজিয়া মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র এবং কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার ঘড়িয়ালডাঁঙ্গা ইউনিয়নের চেতনা গ্রামের আব্দুল হালিমের দ্বিতীয় পুত্র।

আব্দুল হালিম সমকালকে জানান, গত ৮ জুন মোবাইল কেনার খবরে ক্ষুদ্ধ হয়ে ওই মাদ্রাসার শিক্ষক রেজাউল করিম অন্যান্য শিক্ষার্থীদের সামনে সাহিলকে ‘চোর’ আখ্যা দিয়ে ‘ব্যাপক মারধর’ করেন। ওই ঘটনার দুদিন পর সে মাদ্রাসা থেকে নিখোঁজ হয়।

 

আব্দুল হালিম বলেন, ‘যে মোবাইলের জন্য আমার ছেলেকে চোর বদনাম দিয়ে মারধর করা হল, সেটি ডেড মোবাইল। শখের বশে ডেড মোবাইল কিনেছিল আদনান।’

 

ছেলের শোকে মা বিলকিস বেগম নাওয়া-খাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন। আদনানের নিখোঁজ সংবাদে গোটা গ্রামও স্তব্ধ।

 

আব্দুল হালিম জানান, ইতোমধ্যে লালমনিরহাট সদর থানায় জিডি করা হয়েছে। সহায়তা চাওয়া হয়েছে র্যাজবের।

 

তিস্তা আল-জামিয়া ইসলামিয়া মডেল হেফজুল কোরআন ও হাফেজিয়া মাদ্রাসা সুপার মজিবুর রহমান বলেন, ‘গত বুধবার মোবাইল উদ্ধার ও মাদ্রাসার ছাত্রদের টাকা চুরি এবং পরে ফেরত প্রদানের ঘটনায় শিক্ষক রেজাউল করিম আদনান সাহিলকে মেরেছিল। গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর থেকে ছেলেটি নিখোঁজ রয়েছে। আমি ওই দুদিন মাদ্রাসায় ছিলাম না। আমরাও বিভিন্নভাবে ছেলেটির খোঁজ করছি।

 

লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম বলেন, জিডি হওয়ার পর থেকে আদনানকে খুঁজতে পুলিশ অভিযানে নেমেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved ©2023 -ওল্ডহাম বাংলা নিউজ |

সম্পাদক ও প্রকাশক: