মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১১:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দেবিদ্বারে কেঁদে কেঁদে ঈগল প্রতিকে ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম নৌকায় ভোট দিয়েই মেঘনার সঠিক উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব… সেলিমা আহমাদ ঈগলে ভোট দিলে গোমতীর মাটি লুট জিবির নামে চাঁদাবাজি বন্ধ হবে: আবুল কালাম আজাদ দেবিদ্বারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা কুমিল্লায় পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ ব্রাজিলে ঘূর্ণিঝড়ে নিহত ২২ সিলেটে মসজিদের পুকুর থেকে ইমামের মরদেহ উদ্ধার সিলেটে সিএনজি স্টেশনের জেনারেটর বিস্ফোরণে দগ্ধ ৭ বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিলের নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা মারা গেলেন লন্ডনের বাংলাদেশ হাইক‌মিশনের মিনিস্টার মুক্তি

স্বরুপ কাঠি উপজেলা ১০ নং সারেকাঠী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনার স্যাকমোর বিরুদ্ধে নিয়মিত অফিস না করার অভিযোগ

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২২
  • ৬৬

 

 

নেছারাবাদ (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

সাংবাদিক  মোঃ  নাফিস  ইকবাল

সারেংকাঠী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ক্লিনিক এর স্যাকমো সোনিয়া মুন্নির বিরুদ্ধে অফিসে নিয়মিত না আসার অভিযোগ উঠেছে। তিনি তার খেয়াল খুশি মত অফিসে আসেন আবার তার ইচ্ছে হলে চলে যান। স্হানীয় ভুক্ত ভোগীরা জানান তিনি কাউকে তোয়াক্কা করেন না, কথিত আছে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিস সহকারী আমিনুল ইসলাম দুলাল এর সাথে সখ্যতা থাকায় তার বিরুদ্ধে স্বয়ং পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাও চুপ থাকেন। স্থানীয় নাম না বলার শর্তে একজন বলেন স্যাকমো যদি হাসপাতালে সরকারি নির্ধারিত কোয়ার্টারে থাকতো তবে প্রসুতি মায়েরা তাদের প্রসব পূর্ববর্তী চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হতোনা বা কিশোরীরা তাদের কৈশোর কালীন স্বাস্থ্য সেবা পেতো। অত্র ইউনিয়ন থেকে থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর দূরত্ব প্রায় দশ কিলোমিটার, তার মাঝে আবার একটা বৃহৎ নদী। তিনি তার নির্ধারিত কোয়ার্টারে না থেকে তার অফিস থেকে সেই ১০ কিলোমিটার দূরে বাসা নিয়ে থাকেন। তাই স্থানীয় গর্ভবতী নারী তথা কিশোরী মেয়েদের কৈশোর কালীন স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তিনি যদি রোগীদের কথা বিবেচনা করে উক্ত ক্লিনিকে উপস্থিত থেকে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করতো তাহলে ইউনিয়ন এর হত দরিদ্র মানুষের উপকার হতো বলে তিনি জানান।

গত ১৭- ০৪-২২ ইং তারিখে সকাল ৮ঃ৩০ মিঃ থেকে গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত হলে তাঁকে তার অফিসে পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে থানা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) জহুর বালা মহোদয় মুঠোফোনে বলেন স্যাকমোর অনুপস্থিতির কারন আমার জানা নাই, তাদের অফিসেও কোন মিটিং নাই। এ বিষয়ে সোনিয়া মুন্নিকে তার মুঠো ফোনে জিজ্ঞেস করলে তিনি অফিসিয়াল কাগজ থানা পরিবার পরিকল্পনা অফিসে জমা দেওয়ার জন্য যাচ্ছে বলে জানান, উক্ত ক্লিনিকে ঐ সময় ভিজিটর স্যাটালাইট ক্লিনিক এ স্বাস্থ্য সেবা প্রদান কাজে নিয়োজিত ছিলেন, অপরদিকে স্যাকমো না এসে কোন মোবমেন্ট রেজিস্ট্রার এ অন্তর্ভুক্ত না করে স্থান ত্যাগ করলে সাধারণ জনগন স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হয়।

কোয়ার্টার এ থাকার ব্যাপারে পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জানান সরকারি কোয়ার্টার তার জন্য বরাদ্দ এবং থাকাও তার জন্য অতি জরুরী। অফিসে অনুপস্থিতি এবং কোয়ার্টারে না থাকার বিষয়ে কোন ব্যবস্থা নিবেন কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে অবশ্যই নিবেন বলে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved ©2023 -ওল্ডহাম বাংলা নিউজ |

সম্পাদক ও প্রকাশক: