সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেবিদ্বারে কেঁদে কেঁদে ঈগল প্রতিকে ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম নৌকায় ভোট দিয়েই মেঘনার সঠিক উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব… সেলিমা আহমাদ ঈগলে ভোট দিলে গোমতীর মাটি লুট জিবির নামে চাঁদাবাজি বন্ধ হবে: আবুল কালাম আজাদ দেবিদ্বারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা কুমিল্লায় পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ ব্রাজিলে ঘূর্ণিঝড়ে নিহত ২২ সিলেটে মসজিদের পুকুর থেকে ইমামের মরদেহ উদ্ধার সিলেটে সিএনজি স্টেশনের জেনারেটর বিস্ফোরণে দগ্ধ ৭ বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিলের নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা মারা গেলেন লন্ডনের বাংলাদেশ হাইক‌মিশনের মিনিস্টার মুক্তি

শেষ ওভারের শেষ বলে আইপিএলে লক্ষ্ণৌয়ের জয়

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১১ এপ্রিল, ২০২৩
  • ২৬

আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে শেষ বলে নাটকীয় জয় পেয়েছে লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস। সোমবার চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে এ জয় পায় দলটি। এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ২ উইকেট হারিয়ে ২১২ রানের বড় সংগ্রহ পায় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

ওপেনিংয়ে দুর্দান্ত শুরু করেন কোহলি ও ডু প্লেসি। তারা ৬৯ বলে গড়েন ৯৬ রানের জুটি। দুইজনই পান ফিফটির দেখা। এই জুটি ভাঙেন অমিত মিশরা। ৪৪ বলে ৪ ছক্কা ও ৪ চারে ৬১ রান করে আউট হন কোহলি। তবে ডু প্লেসি তিনে নামা ম্যাক্সওয়েলকে নিয়ে গড়েন শতরানের জুটি। ২৪ বলে ফিফটি হাঁকান ম্যাক্সওয়েল।

তাদের মাত্র ৫০ বলে ১১৫ রানের জুটিতে দুইশ পার করে ব্যাঙ্গালুরু। শেষদিকে ম্যাক্সওয়েলকে বিদায় করে এই জুটি ভাঙেন মার্ক উড। ২৯ বলে ৬ ছক্কা ও ৩ চারে ৫৯ রান করে বিদায় নেন তিনি । ৪৬ বলে ৫ ছক্কা ও ৫ চারে ৭৯ রান করে অপরাজিত থাকেন ডু প্লেসি।

রান তাড়া করতে নেমে ২৩ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে লক্ষ্ণৌ। কাইল মায়ার্স ০, দিপক হুডা ৯ ও ক্রুনাল পান্ডিয়া ০ রানে বিদায় নেন। এরপর স্টইনিস এসে ঝোড়ো ব্যাটিং শুরু করেন; তাকে সঙ্গ দেন লোকেশ রাহুল। ২৫ বলে ফিফটি পূর্ণ করেন স্টয়নিস। রাহুল অবশ্য বিদায় নেন ১৮ রান করেই। তবে স্টইনিস করেন ৩০ বলে ৫ ছক্কা ও ৬ চারে ৬৫ রান।

এরপর ব্যাটিংয়ে নেমেই তাণ্ডব চালিয়ে মাত্র ১৫ বলে তুলে নেন অর্ধশতক নিকোলাস পুরান। যেটি এই আসরেরর দ্রুততম ফিফটি। কিন্তু জয় নিশ্চিত করার আগেই ১৯ বলে ৭ ছক্কা ও ৪ চারে ৬২ রান করে বিদায় তিনি। আয়ুস বাধোনিও চেষ্টা চালান জয় নিশ্চিত করতে। তবে ২৪ বলে ৩০ রান করে আউট হন তিনি।

শেষ ওভারে লক্ষ্ণৌয়ের দরকার ছিল ৫ রান। এই ৫ রান তুলতে গিয়ে ২ উইকেট হারায় তারা। শেষ বলে তাদের প্রয়োজন ছিল এক রান। হার্শাল প্যাটেলের বলে ব্যাট লাগাতে না পারলেও দৌড় দেন আভেশ খান। ফলে জয় নিশ্চিত হয় দলটির।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved ©2023 -ওল্ডহাম বাংলা নিউজ |

সম্পাদক ও প্রকাশক: