সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০২:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেবিদ্বারে কেঁদে কেঁদে ঈগল প্রতিকে ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম নৌকায় ভোট দিয়েই মেঘনার সঠিক উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব… সেলিমা আহমাদ ঈগলে ভোট দিলে গোমতীর মাটি লুট জিবির নামে চাঁদাবাজি বন্ধ হবে: আবুল কালাম আজাদ দেবিদ্বারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা কুমিল্লায় পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ ব্রাজিলে ঘূর্ণিঝড়ে নিহত ২২ সিলেটে মসজিদের পুকুর থেকে ইমামের মরদেহ উদ্ধার সিলেটে সিএনজি স্টেশনের জেনারেটর বিস্ফোরণে দগ্ধ ৭ বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিলের নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা মারা গেলেন লন্ডনের বাংলাদেশ হাইক‌মিশনের মিনিস্টার মুক্তি

ব্রিটিশ পার্লামেন্ট পরিদর্শন করলেন লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের নেতৃবৃন্দ

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই, ২০২৩
  • ২৩

পপলার এন্ড লাইম হাউজ আসনের এমপি আপসানা বেগম এর আমন্ত্রণে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট পরিদর্শন করেছে লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের নেতৃবৃন্দ। এ উপলক্ষ্যে গত ৩ জুলাই সোমবার বিকেলে লন্ডন-বাংলা প্রেস ক্লাবের নির্বাহী কমিটির একটি প্রতিনিধি দল ব্রিটিশ পার্লামেন্টের প্রোর্টকোলিজ হাউজে পৌছায়।

সেখানে তাদের স্বাগত জানান এমপি আপসানা বেগমের একান্ত কর্মকর্তা মিশ রহমান, নিকোলা টেইলর ও শিরিন। পরে নেতৃবৃন্দকে ওয়েস্টমিনস্টার হল হয়ে সেন্ট্রাল লবিতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেন্ট্রাল লবিতে এমপি আপসানা বেগম প্রতিনিধিদলকে স্বাগত জানান। এরপর তিনি বিভিন্ন বিভাগ ঘুরে দেখান।

পার্লামেন্টের বিভিন্ন বিভাগ ঘুরে দেখা শেষে কমিটি রুমে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ে মিলিত হন এমপি আপসানা।

মতবিনিময়কালে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে আপসানা বেগম বলেন,গত ১০ বছর ধরে ব্রিটেনের স্কুলগুলোতে কারিকুলাম সংকুচিত হচ্ছে। বিশেষকরে ভাষা শিক্ষার ক্ষেত্রে। অনেক ইউরোপিয়ান ভাষা শিক্ষার সুযোগ আছে অথচ বাংলা শিক্ষার সুযোগ দিনদিন সংকুচিত হচ্ছে। টাওয়ার হ্যামলেটসের স্কুলগুলোতে আগে যেভাবে বাংলা শেখার সুযোগ ছিলো তা অনেক সংকুচিত হয়ে এসেছে।

তিনি বলেন, আমি এই বিষয়টি নজরে রাখছি। বাংলা শিক্ষার সুযোগ বহাল রাখতে লেবার এমপি হিসেবে পার্লামেন্টে বিতর্ক করেছি। আমিই প্রথম এমপি যে বৃটিশ পার্লামেন্টে সিলেটি ভাষায় ডিবেট করেছি।

তিনি আরোও বলেন, স্কুলগুলোতে যার যার মাতৃভাষা শিক্ষার সুযোগ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে শুধু চারজন বাঙালি এমপিই কেন, আমরা ক্রস পার্টি মিলে কাজ করতে পারি। আমি ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে পার্লামেন্টে বিতর্ক করেছি। এর আগে এভাবে কোনো বিতর্ক হয়নি। ভবিষ্যতে নিজ দল লেবার পার্টি, ক্ষমতাসীন কনজার্ভেটিভ পার্টি ও অন্যান্য দলের সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে সংসদে একসঙ্গে কথা বলবো। কনজার্ভেটিভ সরকার প্রস্তাবিত বিভিন্ন আইন সূক্ষভাবে বিশ্লেষণে ভুমিকা রাখছে। বিশেষ করে যেসব বিষয় বৃটিশ-বাংলাদেশী কমিউনিটির ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে সেগুলোর বিষয়ে নিয়ে সোচ্চার ভুমিকা পালন করে আসছে। যুক্তরাজ্যে বৃটিশ বাংলাদেশী কমিউনিটিতে শিশু দারিদ্রতার হার বেশি, বিশেষ করে টাওয়ার হ্যামলেটসে শিশু দারিদ্রতার হার সর্বোচ্চ। তাই শিশু দারিদ্রতা কমিয়ে আনতে তিনি কাজ করছেন।

মতবিনিময় সভায় লন্ডন-বাংলা প্রেস ক্লাবের ১০ সদস্যের প্রতিনিধিদলে ছিলেন প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এমদাদুল হক চৌধুরী, জেনারেল সেক্রেটারি তাইসির মাহমুদ, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ব্যারিস্টার তারেক চৌধুরী, ভাইস প্রেসিডেন্ট রহমত আলী, ট্রেজারার সালেহ আহমদ, এসিসটেন্ট ট্রেজারার মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, মিডিয়া এন্ড আইটি সেক্রেটারি আব্দুল হান্নান, প্রথম নির্বাহী সদস্য আহাদ চৌধুরী বাবু, নির্বাহী সদস্য সরওয়ার হোসাইন ও নির্বাহী সদস্য আনোয়ার শাহজাহান। এসময় প্রতিনিধিদলের সঙ্গে ছিলেন ক্লাবের সাধারণ সদস্য ফটো সাংবাদিক খালিদ হোসাইন।

শেষে আমন্ত্রণ গ্রহণ করে প্রেস ক্লাব নেতৃবৃন্দ পার্লামেন্ট পরিদর্শনে যাওয়ায় আপসানা বেগম এমপি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, এটি অবশ্যই একটি গুরুত্বপুর্ণ ভিজিট। বৃটিশ-বাংলাদেশী এমপি হিসেবে আপনাদের আমন্ত্রন জানিয়ে পার্লামেন্ট ঘুরে দেখাতে পেরে আমি গর্ববোধ করছি।

প্রেস ক্লাব সভাপতি মোহাম্মদ এমদাদুল হক চৌধুরী ও জেনারেল সেক্রেটারি তাইসির মাহমুদ এমপি আপসানা বেগমকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, একজন বৃটিশ-বাংলাদেশী এমপি হিসেবে বাংলা মিডিয়ার সাংবাদিকদের গুরুত্বের সাথে আমন্ত্রণ জানিয়ে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট ঘুরে দেখার সুযোগ করে দেয়া আমাদের জন্য অনেক সম্মানের। আমরা ব্রিটিশ পার্লামেন্ট সম্পর্কে অজানা অনেক কিছুই জানতে পারলাম, যা আমাদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে কাজে লাগবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved ©2023 -ওল্ডহাম বাংলা নিউজ |

সম্পাদক ও প্রকাশক: