বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০১:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেবিদ্বারে কেঁদে কেঁদে ঈগল প্রতিকে ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম নৌকায় ভোট দিয়েই মেঘনার সঠিক উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব… সেলিমা আহমাদ ঈগলে ভোট দিলে গোমতীর মাটি লুট জিবির নামে চাঁদাবাজি বন্ধ হবে: আবুল কালাম আজাদ দেবিদ্বারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা কুমিল্লায় পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ ব্রাজিলে ঘূর্ণিঝড়ে নিহত ২২ সিলেটে মসজিদের পুকুর থেকে ইমামের মরদেহ উদ্ধার সিলেটে সিএনজি স্টেশনের জেনারেটর বিস্ফোরণে দগ্ধ ৭ বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিলের নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা মারা গেলেন লন্ডনের বাংলাদেশ হাইক‌মিশনের মিনিস্টার মুক্তি

কাউন্সিল ট্যাক্স নিয়ে নতুন আলোচনায় যুক্তরাজ্যের ওয়েলস

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৪ মে, ২০২৩
  • ২৩

যুক্তরাজ্যে’র ওয়েলস অর্থমন্ত্রী জানিয়েছে’ন, ২০২৫ সালে সরকারে’র পক্ষ হতে কাউন্সিল ট্যাক্সে’র একটি বড় আপডেট করা হবে। এ’তে হয়ত কেউ খুবই লাভবান হবে’ন কিংবা কেউ ক্ষতিগ্র’স্ত হতে পারেন। রেবেকা ইভান্স নিশ্চিত করেছে’ন যে কর্মকর্তাদে’র ২০ বছরের মধ্যে এই প্রথম বাড়িগুলি’র ব্যাণ্ড পুনর্বিবেচ’না করতে বলা হয়েছে।

এই বছরে’র এপ্রিলে বাড়ি’গুলি কি মূল্যমানে’র ছিল তার মূল্যায়নে’র ভিত্তিতে ২০২৫ সালে বাড়ি’র ব্যান্ডগুলি পরিবর্তিত হবে।

মিসেস ইভান্স বলেন, ” আমি স্বীকার করছি যে এই পরিবর্তনগু’লো অনেক জটিল বিষয় এবং এতে কেউ ক্ষতিগ্র’স্ত হতে পারে এবং কেউ হবে লাভবান। প্রতি বছর যে আমরা বাড়িগুলো’র ট্যাক্স ব্যাণ্ড অপরিবর্তি’ত রেখে যাচ্ছি তাতে অনেক ক্ষেত্রেই দরিদ্র পরিবার’গুলো চাপের মুখে পড়ে।”

সংবাদমাধ্যমে’র খবরে জানা যায়, ওয়েলসে’র সর্বশেষ বাড়িগুলো’র ব্যাণ্ডিং বিবেচনা করা হয় ২০০৩ সালে। ইংল্যান্ড এবং স্কটল্যান্ডে ১৯৯১ সালে’র পর থেকে বাড়ির ব্যাণ্ডিং মূল্যায়ন হয় নাই।

সমালোচক’রা বলছেন যে হাউজিং ট্যাক্সটি অনেক’ক্ষেত্রে অন্যায়ভা’বে নির্ধারিত করা হয়েছিল বলে অনেক সমীক্ষায় দেখা গেছে। তাই বাড়ি’র ব্যাণ্ডিং নতুন করে মূল্যায়ন হওয়া উচিত।

মিস ইভান্স জানিয়েছেন, বাড়ির দাম বাড়ানো’র সাথে সাথে কাউন্সিল ট্যাক্স বাড়বে না। বাড়ির আপেক্ষিক মূল্যে’র উপর ব্যান্ড নির্ধারণ করা হয়।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয় সেটার দিকেই আমাদে’র নজর দেওয়া উচিত। বাড়ির দাম বাড়লে’ই যে কাউন্সিল ট্যাক্স বাড়তে হবে এমন কোনো কথা নেই।
বরং বাড়ির আপেক্ষিক অবস্থানের উপর কাউন্সিল ট্যাক্স নির্ভর করে।

২০১৯ সালে সরকারে’র পক্ষ থেকে এক গবেষণায় দেখা গেছে, এই মুহুর্তে কাউন্সিল ট্যাক্স পুননির্ধারণে’র অর্থ অর্ধেক বাড়ির কাউন্সিল ট্যাক্স অপরিবর্তিত থাকবে। এক চতুর্থাংশে’র কাউন্সিল ট্যাক্স কমবে এবং এক চতুর্থাংশে’র কাউন্সিল ট্যাক্স হয়ত বাড়বে।

পূর্বে বাড়ির কাউন্সিল ট্যাক্স নয়টি ব্যান্ডে’র উপর ভিত্তি করে নির্ধারণ করা হতো। ভবিষ্যতে এই পরিকল্পনা কিভাবে নির্ধারিত হবে তা এই বছরের শেষে’র দিকে প্রকাশিত হবে বলে খবরে জানা যায়।

তাছাড়া ট্যাক্স ছাড় ও কিসে’র ভিত্তিতে ছাড় দেয়া হবে তা এখনও পর্যালোচনাধীন রয়েছে।

কনজারভেটিভ এমএস স্যাম রোল্যান্ডস বলেন, “জনসাধারণ এই মুহুর্তে কঠিন সময়ে অতিক্রম করছে তাই কাউন্সিল ট্যাক্সের উপর কে লাভবান বা কে ক্ষতিগ্রস্ত সেটা মুখ্য বিষয় নয়। প্রত্যেকে’রই বিলের ভার সইতে হবে। আমরা ইউক্রেন যুদ্ধে’র কারণে কমবেশি সকলেই ক্ষতিগ্রস্ত।”

উল্লেখ্য যে বর্তমান কাউন্সিল ট্যাক্স সিস্টেম’টি প্রায় বিশ বছরের পুরানো। যা সম্পদে’র বৈষম্যকে ত্বরান্বিত করছে। এছাড়া ওয়েলসে’র দরিদ্র অঞ্চলগুলি’কে তা খুব বেশি প্রভাবিত করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved ©2023 -ওল্ডহাম বাংলা নিউজ |

সম্পাদক ও প্রকাশক: